বগুড়া লেখক চক্র’র ৩দিনব্যাপী কবি সম্মেলন ২৫-২৭ নভেম্বর : পুরস্কার পাচ্ছেন ৫জন

রওশন ঝুনু, বগুড়া থেকে : বগুড়া লেখক চক্র’র ৩দিনব্যাপী কবি সম্মেলন ২৫-২৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সংগঠনের ৩৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত কবি সম্মেলনে এ বছরও ৫টি বিষয়ে ‘বগুড়া লেখক চক্র পুরস্কার ২০২২’ প্রদান করবে।

বগুড়া লেখক চক্র’র  সভাপতি,  কবি, ইসলাম রফিক  ‘ওপেনপ্রেস24’কে এসব কথা জানান।

‘দোআঁশ’ সম্পাদক ইসলাম রফিক বলেন, আগামী ২৫, ২৬ ও ২৭ নভেম্বর ৩দিনব্যাপী বগুড়া লেখক চক্র আয়োজিত কবি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ২৫ নভেম্বর ২০২২ শুক্রবার সকাল ৯টায় বগুড়া জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন সাবেক সচিব, কবি কামাল চৌধুরী। প্রতিবারের ন্যায় এ বছরও সংগঠনের পক্ষ থেকে ৫টি বিষয়ে ‘বগুড়া লেখক চক্র পুরস্কার ২০২২ প্রদান করবে।

পুরষ্কারপ্রাপ্তরা হলেন, মুজিব মেহদী (কবিতা), প্রশান্ত হালদার (কথাসাহিত্য), সরকার আবদুল মান্নান (প্রবন্ধসাহিত্য), শফিক সেলিম লিটল ম্যাগাজিন সম্পাদনা) এবং আমজাদ হোসেন মিন্টু (সাংবাদিকতা)।উক্ত কবি সম্মেলনে বাংলাদেশ এবং ভারত থেকে আগত ২শ’র অধিক আমন্ত্রিত কবি অংশগ্রহণ করবেন।

কবি সম্মেলনে সংগঠনের মুখপত্র ‘ঈক্ষণ’ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অক্টোবর ‘২২ সংখ্যা প্রকাশিত হ’চ্ছে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ছিলো বগুড়া লেখক চক্রের ৩৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

সংগঠনের সভাপতি বলেন, ইতোমধ্যে সংগঠনটি ৩৪ বছর অতিক্রম করেছে। একটি সাহিত্য সংগঠন ধারাবাহিকভাবে সক্রিয় থেকে ৩৪ বছর পার করা সহজ কথা নয়। সেই অসাধ্য সাধন করেছে বগুড়া লেখক চক্র।

প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ ফিরোজ আহমদসহ প্রতিষ্ঠাতা পলাশ খন্দকার, মাহমুদ হোসেন পিন্টু, মিঠু হোসেন, পিয়াল খন্দকার, শিবলী মোকতাদিরসহ সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা, শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে ইসলাম রফিক বলেন, বগুড়া লেখক চক্র প্রতিষ্ঠাকাল থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তচিন্তা বুকে ধারণ ক’রে, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা এবং একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখে নিরন্তর।

ইসলাম রফিক বলেন, বগুড়া লেখক চক্র প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৮৮ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর। ৩৪ বছরের এই সাহিত্য সংগঠনটি শুরু থেকে এখন অবধি ধারাবাহিকভাবে পাক্ষিক সাহিত্য আসর করে যাচ্ছে। ঝড় বৃষ্টি, ঈদ কিংবা পূজা কোনো উৎসব কিংবা বিপর্যয়ই বাঁধা হয়ে দাঁড়ায়নি। এই দীর্ঘসময়ে বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত কবি সাহিত্যিকদের জন্মদিন, মৃত্যুদিন পালন, বগুড়ায় বসবাসকারী কবিদের জন্মদিন মৃত্যুদিন পালন, কবিদের বই নিয়ে পাঠ পর্যালোচনা, সংগঠনের মুখপত্র ‘ঈক্ষণ’ এর ধারাবাহিক প্রকাশ, বইমেলা, তরুণদের জন্য লেখালেখি  বিষয়ক কর্মশালা, বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত বই পাঠ এবং পাঠপর্যালোচনার আয়োজন ক’রে যাচ্ছে বগুড়া লেখক চক্র। এছাড়াও, নিয়মিত কবি সম্মেলনের আয়োজন তো আছেই।

বর্তমানে সারাদেশের কবি সাহিত্যিকদের পদচারণায় বগুড়া মুখরিত। এই ৩৪ বছরে প্রায় ৩ হাজারের  অধিক কবি বগুড়া লেখক চক্রের সাথে সম্পৃক্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত প্রায় ১৫০ এর অধিক কবি সাহিত্যিক গুণীজনকে পুরস্কার/সম্মাননা প্রদান করেছে বগুড়া লেখক চক্র।

ইসলাম রফিক বলেন, এই অঞ্চলে সাহিত্য আন্দোলন তথা লিটল ম্যাগাজিন আন্দোলনে বগুড়া লেখক চক্র একটি শ্রদ্ধার নাম। বগুড়ায় থেকেছেন, লেখালেখি করেছেন, অথচ বগুড়া লেখক চক্রের সাথে যুক্ত হননি এরকম লেখক একেবারে হাতে গোণা। বগুড়া লেখক চক্রের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেশ বিদেশের অনেক কবি-সাহিত্যিক বগুড়ায় এসেছেন এবং বগুড়ার সাহিত্য আন্দোলনকে ঋদ্ধ করেছেন। প্রগতিশীল চিন্তার সংগঠন বগুড়া লেখক চক্র তরুণ, নবীণ আর প্রবীণদের মিলনক্ষেত্র। যা এই অঞ্চলে সাহিত্যের আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

SuperWebTricks Loading...
Headlines